ফ্রান্সে বুদ্ধগয়া প্রজ্ঞাবিহার ধ্যানকেন্দ্রে দানোত্তম কঠিন চীবর দান সম্পন্ন

0
205
অনুপম বড়ুয়া, প্যারিস (ফ্রান্স)
ফ্রান্সে বাংলাদেশী বুদ্ধগয়া প্রজ্ঞাবিহার ধ্যানকেন্দ্রের উদ্যোগে কঠিন চীবর দান উদযাপিত হয়েছে। রাজধানী প্যারিস ও এর আশপাশ শহরে বসবাসরত বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা তাদের অন্যতম এই ধর্মীয় উৎসব বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ও ধর্মীয় ভাব-গাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পালন করেন। গতকাল রোববার ( ১০ নভেম্বর) প্যারিসের অদূরে সেন্ট ডেনিশের সাল লে নক্টিস  মিলনায়তনে দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানমালা আয়োজন করা হয়। 
দানোত্তম কঠিন চীবর দান উপলক্ষে ভোর থেকে শুরু হওয়া এ অনুষ্ঠানে শীল গ্রহণ, বুদ্ধপূজা, সংঘদান, অষ্টপরিষ্কার দান, কল্পতরু দান, ধর্মীয় শোভাযাত্রা ও সবশেষ বহু আকাঙ্ক্ষিত কঠিন চীবর দানসহ নানা আয়োজনে সমৃদ্ধ ছিল। সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপনী হয়।  নারী, শিশু, পুরুষদের উপচে পড়া ভীরে  উৎসব মুখরতায় অন্যরকম আবেশে রূপ নেয় বৌদ্ধদের  এ পবিত্র  কঠিন চীবর দান। বিভিন্ন দেশের পুণ্যার্থী বৌদ্ধদের সমাগমে এক অভূতপূর্ব মিলনমেলায় পরিণত হয়। 
বিকেলে বুদ্ধগয়া প্রজ্ঞাবিহারের পরিচালক  ভদন্ত ভদন্ত কল্যাণ রত্ন ভিক্ষুর উদ্বোধনী ভাষণের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া দানসভায় ফ্রান্সস্থ  ধর্মচাক্কা বিহারের অধ্যক্ষ কে, আনন্দ নায়ক থেরো সভাপতিত্ব করেন। প্রধান  অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ক্যালিফোনিয়াস্থ  সম্বোধি বিহারের অধ্যক্ষ , বৌদ্ধ গবেষক  ড. লোকানন্দ মহাথের। আশীর্বাদক হিসেবে ভিডিও বার্তা প্রদান করেন পন্ডিত প্রবর প্রজ্ঞাবংশ মহাথের। অতিথি ছিলেন ফ্রান্সে নিয়োজিত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত ক্যউ জেয়া বক্তব্য প্রদান করেন। প্রধান ধর্ম দেশক ছিলেন নিউইয়ক বাংলাদেশ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত মুদিতারত্ন থের। অন্যান্যদের মধ্যে  ভদন্ত জ্যোতিসার থেরো ও ভদন্ত চন্দ্রজ্যোতি থেরো, সহ বিভিন্ন দেশের বৌদ্ধ ভিক্ষুরা উপস্থিত ছিলেন। মঙ্গলাচরণ করেন ভদন্ত আনন্দ ভিক্ষু। অনুষ্টান উদযাপন পরিষদের সম্পাদক  পলাশ বড়ুয়ার সঞ্চালনায় পঞ্চশীল প্রার্থনা করেন উত্তম বড়ুয়া। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুজয় বড়ুয়া। 
উদ্বোধনী সংগীত পরিবেশন করেন রীমা মুৎসুদ্দী,  শমিষ্টা  বড়ুয়া, সোহেল বড়ুয়া, রাজু বড়ুয়া, অমিত বড়ুয়া, রাসেল বড়ুয়া, সবুজ বড়ুয়া,প্রিয়াংকা বড়ুয়া,শিউলি বড়ুয়া ও সুস্মিতা বড়ুয়া। এ সময় তবলায় সংগত করেন তবলায় সংগত করেন শাপলু চৌধুরী বড়ুয়া। কিবোর্ডে ছিলেন রাসেল। ইথুন বাবুর কথা ও সুরে বরণ সংগীত পরিবেশন করেন সুনেত্রা বড়ুয়া, অদিতি বড়ুয়া, বর্ষা বড়ুয়া, মিনতি বড়ুয়া, জুলি বড়ুয়া ও পূজা বড়ুয়া।  
প্রবাসে অবস্থান ও নানা প্রতিকূলতা সত্ত্বেও বৌদ্ধদের দান শ্রেষ্ঠ এ কঠিন চীবর দান পূণ্যোৎসবে অংশগ্রহণ করে পেরে পুণ্যার্থী উপাসক-উপাসিকাদের মহামিলনের আশাজাগানিয়া আনন্দের স্ফুরণ ছিল দেখার মতো। পূজনীয় ভিক্ষুসংঘরাও কঠিন চীবর দানের পূণ্যবার্তায় সকলের প্রতি মৈত্রী-করুণা চিত্তে আশীর্বাদ-পূণ্যদান করেন। পাশাপাশি নিরবচ্ছিন্ন নানা অবক্ষয় ও অস্থির পৃথিবীতে শান্তির সুবাতাস প্রবাহিত হোক এ শুভ কামনা বিশ্বশান্তি প্রার্থনা করেন।  পরে শিল্পী নজল বড়ুয়া ও রীমা মুৎসুদ্দির পরিচালনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। এতে প্যারিসের স্থানীয় শিল্পীরা সংগীত পরিবেশন করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here