ভেরীবাদক জাতক

0
329

বারাণসীরাজ ব্রহ্মদত্তের সময়ে বােধিসত্ত্ব একবার ভেরীবাদকের বংশে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।

তিনি এক গ্রামে বাস করতেন। তিনি তাঁর পুত্রসহ ভেরী বাজিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

একদিন বােধিসত্ব শূনতে পেলেন, বারাণসী নগরে কোন পর্ব উপলক্ষে এক বড় উৎসব হবে। মহা সমারােহ হবে নগরে। বহু লােকসমাগম হবে।

সমাগত লােকদের কাছে ভেরী বাজালে বেশ কিছু অর্থ পাওয়া যেতে পারে। এই ভেবে তিনি পুত্রসহ উৎসবস্থানে চলে গেলেন।

সেদিন নগরে ভেরী বাজিয়ে অনেক ধন লাভ করলেন বােধিসত্ত্ব

উৎসব শেষ হলে তিনি সেই ধন নিয়ে বাড়ির পথে যাত্রা করলেন। পথে এক বন ছিল।

সেই বনে এক দস্যুদল ছিল। বনের মধ্যে পথিকদের পেলেই তারা উপদ্রব করত।

বােধিসত্ত্বের পুত্র সেই বনের মধ্য দিয়ে যাবার সময় একটানা ভেরী বাজিয়ে চলল।

সে ভাবল, এইভাবে বাজালে, ভেরীর শব্দ শুনে দস্যুরা পালিয়ে যাবে।

কিন্তু বােধিসত্ত্ব তার ছেলেকে বললেন, এভাবে একটানা বাজিও না। মাঝে মাঝে বাজাও।

ভেরীর শব্দ শুনে দস্যু সত্যিই পালিয়ে গেল। কারণ তারা ভাবল, হয়ত রাজা বা কোন বিশিষ্ট ধনী ব্যক্তি বহু লােকজন নিয়ে যাচ্ছে।

কিন্তু তারা যখন দেখল, একটানা ভেরী বেজে চলেছে, তখন তারা ভয় করল না।

তারা সাহস করে এগিয়ে দেখল মাত্র দুজন লোক যাচ্ছে।

দস্যরা তখন বােধিসত্ত্ব ও তাঁর ছেলেকে মারধর করে সব ধন কেড়ে নিল।

বোধিসত্ত্ব হায় হায় করতে লাগলেন। বললেন, বহু কষ্ট যে ধন উপার্জন করলাম, দসরা এক নিমেষেই তা কেড়ে নিল।

তারপর তিনি পুত্রকে বললেন, কোন বিষয়ে বাড়াবাড়ি করা উচিত নয়। আমি তােমাকে একটানা করেছিলাম। কিন্তু তুমি আমার কথা না ভেরী বাজাতে নিষেধ শুনে বিস্তর ভেরী বাজিয়ে বিপদ ডেকে আনলে।

উপদেশ : যে পুত্র পিতার উপদেশ মত কাজ না করে, সে নিজের ও তার পিতার বিপদ ডেকে আনে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here