বৌদ্ধ ধর্ম শান্তি, অহিংসা এবং সম্মান দিতে শেখায়- নরেন্দ্র মোদী

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

বৌদ্ধ ধর্ম আমাদের শান্তির পথ দেখায়। অহিংসার পথ দেখায়।

ধর্মচক্র দিবসে, ভিডিও বার্তায় দেশবাসীকে শান্তির কথা বললেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

কেন্দ্রীয় তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রকের উদ্যোগে এবং আন্তর্জাতিক বুডিস্ট কনফেডারেশন এই উৎসবের আয়োজন করে থাকে।

শনিবার অসধা পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জাতির উদ্দেশে ভাষণ রাখলেন ভিডিও বার্তার মাধ্যমে। তুলে ধরলেন ভগবান বুদ্ধের শান্তি ও ন্যায় প্রসারের শিক্ষা। অসধা পূর্ণিমার (Asadha Poornima) শুভেচ্ছা জানিয়ে এদিন তাঁর ভাষণ শুরু করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, ‘এই পূর্ণিমাকে গুরু পূর্ণিমাও (Guru Poornima) বলা হয়ে থাকে। আজকের দিনে আমাদের গুরুদের স্মরণ করার দিন, তাঁরা আমাদের যে শিক্ষা দিয়েছেন তা মেনে জীবনের পথে এগিয়ে চলার দিন। সেই উপলক্ষ্যেই আমরা ভগবান বুদ্ধকে শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।’

ধর্মচক্র দিবসে দেশবাসীকে শান্তির বার্তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর।

দেশের সীমান্ত যখন উত্তেজিত, দেশ রক্ষায় যখন প্রাণ দিচ্ছেন জওয়ানরা তখনই বৌদ্ধধর্মের শান্তি পথ দেশবাসীকে স্মরণ করালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

অহিংসা এবং শান্তির পথই যে উন্নয়নের একমাত্র পথ সেটা দেশবাসীকে স্মরণ করিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।

লাদাখে চৈনিক আস্ফালনের প্রতিবাদে প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন ভারত শান্তিপ্রিয় দেশ। তবে কেউ একারণে খোঁচােল চোখে চোখ রেখে জবাব দিতে জানে।

প্রতিবছর এই ধর্মচক্র দিবসে প্রায় ৩০ লাখ ভক্ত অংশ নেন। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে যে যার বাড়িতেই প্রার্থনা করে ধর্মচক্র দিবস পালন করছেন। প্রধানমন্ত্রী মোদী এদিন ভিডিও বার্তায় বলেছেন বৌদ্ধ ধর্ম আমাদের সম্মান করতে শেখায়। গরিবদের সম্মান করতে শেখায়, নারীকে সম্মান করতে শেখায়।

বৌদ্ধ ধর্মের আট পথ দেশ গঠন এবং উন্নয়নের পথ দেখায়।

দেশের ছাত্র যুবদের সংযত এবং সংগঠিত থাকার পথ দেখায় বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ভারতে এই ধর্ম চক্র দিবস গুরু পূর্ণিমা হিসেবেও উদযাপিত হয়ে থাকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here