অনলাইনে অনুষ্ঠিত প্যাগোডা ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রকল্পের ভূমিকা

0
192

তুলিপ এক্কা: গত ৭ নভেম্বর শনিবার, বিকেল ৩ ঘটিকা থেকে ৫ ঘটিকা পর্যন্ত “প্যাগোডা ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রকল্পের ভূমিকা” শীর্ষক অনলাইন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানটি ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অধীনে বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন

“প্যাগোডা ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রকল্প-২য় পর্যায়” এর আওতাধীন জুম অ্যাপসের মাধ্যমে কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত কর্মশালার বিষয়বস্তু ছিল,

“নৈতিকতা শিক্ষার মাধ্যমে মানবিক জাতি গঠন: প্যাগোডা ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রকল্পের ভূমিকা”।

অনুষ্ঠানে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র জনসংযোগ কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন এর পরিচালনায়, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব নুরুল ইসলাম, পিএইচডি এর সভাপত্বিতে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন- গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ের মাননীয় তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, এমপি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন,

বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ভাইস-চেয়ারম্যান সুপ্ত ভূষণ বড়ুয়া, ট্রাস্টি দয়াল কুমার বড়ুয়া, ডালিম কুমার বড়ুয়া,

ট্রাস্টি ও খাগড়াছড়ি মহিলা সংরক্ষিত আসনের এমপি বাসন্তি চাকমা, ট্রাস্টি দিপক বিকাশ চাকমা, মং কে চিং চৌধুরী, খে মংলা রাখাইন,

এ্যাডভোকেট দিপংকর বড়ুয়া পিন্টু এবং প্রকল্পের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব অত্র প্রকল্পের পরিচালক, উপসচিব সাখাওয়াত হোসেন।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী ড, হাছান মাহমুদ, এমপি বলেন,

“নৈতিকতা শিক্ষার মাধ্যমে মানবিক জাতি গঠনে ইতোমধ্যেই প্যাগোডা ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রকল্পের-১ম পর্যায় সফলতার সাথে ভূমিকা পালন করেছে এবং বর্তমানে ২য় পর্যায়েও সাড়া তৈরী করেছে।”

আগামী দিনের ভবিষ্যত গঠনে প্যাগোডা ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম শিশুদের নৈতিকতা শিক্ষার মাধ্যমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা বিনির্মাণে ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে।

এছাড়াও বর্তমান সময়ে এই শিক্ষা কার্যক্রমের পরিধি আরো বিস্তৃত করার পরামর্শও প্রদান করেন তিনি।

সভাপতির বক্তব্যে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব নুরুল ইসলাম, পিএইচডি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্নার মাগফেরাত ও মুজিববর্ষের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন পূর্বক বলেন,

“আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যত তাই সুন্দর সমাজ নির্মাণে শিশুদের নৈতিকতা শিক্ষার গুরুত্ব অপরোসীম,

যে কাজটি প্যাগোডা ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রকল্প বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে।”

এছাড়াও কর্মশালায় সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাগণ,

বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টিবৃন্দ, কর্মকর্তাবৃন্দ, প্রকল্পের কর্মকর্তাবৃন্দ, প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষাকেন্দ্রের শিক্ষক-শিক্ষিকাগণ, অভিভাবকবৃন্দ, সংবাদকর্মীবৃন্দ, স্থানীয় প্রশাসন ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং ধর্মগুরুগণ সংযুক্ত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here