অপহরণের পর হত্যা

0
290

টেকনাফে আদিবাসী তরুণী লাকিংমেকে(১৫) অপহরণের পর হত্যা করা হয়েছে।

হত্যার আগে তাকে জোর করে ধর্মান্তরিত করা হয়েছে বলে গুজব রটানো হয়েছে। লাকিংমের লাশ পাওয়া গেছে গত ০৯/১২/২০ তারিখে, তার লাশ বর্তমানে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পড়ে রয়েছে।
গত ০৫-০১-২০২০ইং সে নিখোঁজ হয়েছিলো। এই নিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় নিউজ প্রকাশ, প্রশাসনকে অবগত করা হয়।

লাকিংমে চাকমা শাপলাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণি ছাত্রী, বাড়ি টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের শিলখালী চাকমা পাড়ায়।

প্রতিদিনের মতো পিতা মাতা কাজ করতে গেলে বাড়িতে ছিল ছোটবোন ও লাকিংমে।

সুযোগ বুঝে ৪-৫ জন লোক লাকিং চাকমাকে একটা সিএনজিতে তুলে অপহরণ করে বলে জানা যায়।

মা বাবা প্রথমে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ হাফেজকে জানায়। পরবর্তীতে থানায় অভিযোগ দিলে পুলিশ তদন্ত করে।

পুলিশ উদ্ধার করতে না পারলে নিরুপায় হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করে।বিজ্ঞ আদালত মামলাটি পিবিআই কক্সবাজারকে তদন্ত দেয়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here